বাচ্চু ভুইয়া

১১ জুলাই ১৯৬৯

সদস্য, সম্পাদকমণ্ডলী, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি

১৯৯২ সালে একটি দৈনিক পত্রিকায় অফিস সহকারী হিসেবে কাজ করতেন এবং দাপ্তরিক কাজ শেষ করে হকারী করতেন গুলিস্তান, পল্টন, দৈনিক বাংলা এলাকায়। ফলে অনুনাষ্ঠানিক খাতের ভাসমান শ্রমিক ও হকারদের মধ্যে উদ্যোগী সংগঠক হিসেবে তিনি পরিচিতি পান তখন থেকেই। ১৯৯৪ সালের ৭ এপ্রিল কেরানীগঞ্জের মান্দাইলে গড়ে তোলেন বাংলাদেশ বহুমুখি শ্রমজীবী ও হকার সমিতি। প্রতিষ্ঠকালীণ সভাপতিও তিনিই হন। হকার ও শ্রমজীবী মানুষের ওপর উচ্ছেদ, জুলুম নির্যাতনের বিরুদ্ধে তিনি থেকেছেন সবসময়ই সোচ্চার। পুনর্বাসন না করে হকার উচ্ছেদ, রিক্সা বা বস্তি উচ্ছেদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তুলেছেন ভুক্তভোগী মানুষদের সাথে নিয়ে।

১৯৯৭ সালে ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদের প্রতিবাদে হকার উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটি গঠন ও ধারাবাহিকভাবে সংগ্রাম পরিচালনা, পুরান ঢাকার ফুসফুস এবং হকার ও ভাসমান শ্রমজীবী মানুষদের বিশ্রামের স্থল ওসমানী উদ্যানকে রক্ষার আন্দোলনেও বাচ্চু ভূইয়ার নেতৃত্বে যোগ দেন স্থানীয় শ্রমজীবী মানুষ। আগারগাও বিএনপি বস্তি উচ্ছেদের সময়েও শ্রমজীবী মানুষের সাথে থেকে যোগ দেন প্রতিরোধ সংগ্রামে। 

২০০২ সালে গণসংহতি আন্দোলন প্রতিষ্ঠার সময় থেকে বাচ্চু ভূইয়ার গড়ে তোলা সংগঠন বাংলাদেশ বহুমুখী শ্রমজীবী ও হকার সমিতি উদ্যোগী ভূমিকা পালন করে।